বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭ এ পুরস্কৃত “অজ্ঞাতনামা”
বুধবার ২২ নভেম্বর ২০১৭, ১১:২২:১৪

প্রকাশিত : রবিবার, ২২ অক্টোবর ২০১৭ ০১:০৬:৩৪ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭ এ পুরস্কৃত “অজ্ঞাতনামা”

বিনোদন প্রতিবেদক:

শিল্পকলা একাডেমি আয়োজিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭ এর সমাপ্তি ঘটলো শনিবার। গত ৬ অক্টোবর থেকে ঢাকাসহ দেশের ৬৪ জেলায় একযোগে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী করা হয়। এবারের আয়োজনে মোট ৪৪টি চলচ্চিত্র অংশ নেয়। সেরা ৩টি ক্যাটাগরির মধ্যে ২টিতেই পুরস্কৃত হয় তৌকির আহমেদ পরিচালিত সিনেমা অজ্ঞাতনামা। সেরা চলচ্চিত্র ও সেরা চলচ্চিত্র পরিচালক পুরস্কার পায় সিনেমাটি। সেরা জুরি পুরস্কার পায় রুবাইয়াত হোসেনের চলচ্চিত্র আন্ডার কনস্ট্রাকশন।

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির মহাপরিচালক লিয়াকত আলী লাকীর সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক ব্যাক্তিত্ব সৈয়দ হাসান ইমাম, চলচ্চিত্র নির্মাতা মসিহউদ্দিন শাকের, মোস্তফা সারওয়ার ফারুকী। অতিথিরা পুরস্কারপ্রাপ্তদের হাতে ক্রেস্ট ও অর্থের চেক তুলে দেন। সেরা চলচ্চিত্র পুরস্কার হিসেবে ৩ লক্ষ টাকা, সেরা চলচ্চিত্র পরিচালক ১ লক্ষ টাকা ও সেরা জুরি পুরস্কার ৫০ হাজার টাকা দেয়া হয়।

শেষ দিনে মোরশেদুল ইসলামের অনিল বাগচীর একদিন প্রদর্শিত হয়। এরপর মনোজ্ঞ সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সবার শেষে দেখানো হয় তৌকির আহমেদ পরিচালিত সিনেমা অজ্ঞাতনামা।

পুরস্কার পেয়ে নিজের অভিমত ব্যাক্ত করেন তৌকির আহমেদ। তিনি বলেন, পুরস্কার পাওয়া আসলেই আনন্দের। তবে বিকল্প এ সব চলচ্চিত্র প্রদর্শন ও নির্মাণে সরকারকে আরও পৃষ্ঠপোষকতা করতে হবে। তিনি চলচ্চিত্র সংসদ আন্দোলনকে আরও এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার জন্য জোর দেন। বাংলাদেশের চলচ্চিত্রকে বিশ্বের দরবারে নিয়ে যাওয়ার জন্য সরকারী পৃষ্ঠপোষকতা বাড়ানোর দাবি জানান নির্মাতা মোস্তফা সারওয়ার ফারুকী।   

উল্লেখ্য বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় চিত্রশালা মিলনায়তনে গত ৬ অক্টোবর সন্ধ্যায় সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উৎসব-২০১৭’-এর উদ্বোধন করেন। উদ্বোধনী সন্ধ্যায় প্রদর্শিত হয় জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত নির্মাতা রিয়াজুল রিজু পরিচালিত চলচ্চিত্র ‘বাপজানের বায়স্কোপ’।

এবারের উৎসবে সাত সদস্যবিশিষ্ট সিলেকশন কমিটির মাধ্যমে পাঁচটি বিভাগে যথাক্রমে- বাংলাদেশ ধ্রুপদী চলচ্চিত্র, আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বা পুরস্কারপ্রাপ্ত চলচ্চিত্র, মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক চলচ্চিত্র, সমকালিন দেশীয় চলচ্চিত্র (২০১৫-২০১৬) এবং নারী নির্মাতাদের চলচ্চিত্র এর মধ্য থেকে ৪৪টি চলচ্চিত্র প্রদর্শনী করা হয়।

সংবাদটি পঠিতঃ ৭৯ বার