মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০২:৫৯:০০

প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৩১ অক্টোবর ২০১৭ ১০:৪০:২৩ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউটের চার বছর

নিজস্ব প্রতিবেদক:

চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন অনুষ্ঠান নির্মাণে দক্ষ ও যোগ্য নির্মাতা এবং কলাকুশলী সৃষ্টির উদ্দেশ্যে জাতীয় সংসদে একটি আইন পাশের মাধ্যমে ২০১৩ সালের ১ নভেম্বর প্রতিষ্ঠা করা হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট। ২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এর শুভ উদ্বোধন করেন। কাল বুধবার ৪ বছরে পদার্পণ করবে প্রতিষ্ঠানটি। এ উপলক্ষ্যে দিনব্যপী আলোচনা সভা ও চলচ্চিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

সকাল পৌনে নয়টায় জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটের শেখ রাসেল অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠান শুরু হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখবেন মিডিয়া ব্যক্তিত্ব ম.হামিদ এবং বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা মসিহউদ্দিন শাকের। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী স্মারক বক্তব্য দেবেন বিশিষ্ট চলচ্চিত্র নির্মাতা ও বি.সি.টি.আই-এর কোর্স উপদেষ্টা মানজারেহাসীন মুরাদ। অতিথির বক্তব্য দিবেন প্রখ্যাত অভিনেতা এ টি এম শামসুজ্জামান এবং বিশেষ চলচ্চিত্র নির্মাতা শামীম আখতার। অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করবেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট- এর প্রধান নির্বাহী জনাব মোঃ মনজুরুর রহমান।

দুপুর বারোটায় চা-বিরতির পর শুরু হবে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট-এর ৪র্থ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে কয়েকটি নির্বাচিত ডিপ্লোমা চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন প্রোডাকশন এর প্রদর্শনী। এবার দ্বিতীয় চলচ্চিত্র নির্মাণ ও প্রশিক্ষণ স্নাতকোত্তর ডিপ্লোমা কোর্সের শিক্ষার্থীদের নির্মিত ১৬টি চলচ্চিত্রের মধ্য থেকে চারজন নির্মাতার চারটি ডিপ্লোমা চলচ্চিত্র নির্বাচিত হয়েছে প্রদর্শণের জন্য। এ চারটি চলচ্চিত্র হল মুকেশ বিশ্বাস নির্মিত ‘কমলার দল’, জুয়েইরিযাহ মউ নির্মিত ‘ভয়- fear of Silence, কাজী আতিকুর রহমান অভি নির্মিত ‘নিরেট বাস্তবতা’ এবং ঝুমুর আসমা জুঁই নির্মিত ‘পুতুল পুরাণ’।

এছাড়াও প্রদর্শিত হচ্ছে তৃতীয় টেলিভিশন অনুষ্ঠান প্রযোজনা কোর্সের নির্বাচিত প্রযোজনাসমূহ। সেগুলো হল- আরজুমান্দ আরা বকুল-এর ‘জানালা’, মোঃ মঈনুর রহমান এর ‘ওরাও শিশু’, সুস্মিতা সিকদার এর ‘ফোঁটা ফোঁটা বৃষ্টিতে’, শেখ ফয়সাল আহমেদ এর ‘রাজাকারের আত্মকথা’ এবং মোঃ রাশিদুল ইসলাম এর ‘কাউন্টিং’। 

গত চার বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে চারটি চলচ্চিত্র নির্মাণ কোর্স ও চারটি টেলিভিশন অনুষ্ঠান নির্মাণ কোর্স পরিচালিত হচ্ছে। এছাড়া প্রামাণ্যচিত্র নির্মাণ, চিত্রনাট্য রচনা ও অভিনয়ের উপর পৃথক কোর্স পরিচালনা করা হয়। প্রতিষ্ঠানটি প্রশিক্ষনার্থীদের জন্য দেশে বিদেশে বেশকিছু প্রশিক্ষনের ব্যবস্থাও রেখেছে। বর্তমানে রাজধানীর জাতীয় গণমাধ্যম ইনস্টিটিউটে এর অস্থায়ী কার্যালয়। তবে এই প্রতিষ্ঠানের জন্য কল্যানপুরে জমি বরাদ্দ করেছে সরকার। খুব শীঘ্রই এর নির্মাণ কাজ শুরু হবে। 

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের ২০১৩ সালের ২৩ নং আইন হিসাবে ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র টেলিভিশন ইনস্টিটিউট’ আইন পাশ হয়। ২০ জুন ২০১৩ তারিখের বাংলাদেশ গেজেটে প্রকাশিত হয় এবং তথ্য মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী  আইনটি ০১ নভেম্বর ২০১৩ তারিখ থেকে কার্যকর হয়। নবপ্রতিষ্ঠিত বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ও টেলিভিশন ইনস্টিটিউট পরিচালনার জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক প্রজ্ঞাপনের মাধ্যমে তথ্য সচিব জনাব মরতুজা আহমদকে চেয়ারম্যান করে ০৩ বছরের জন্য ২২ সদস্যের গভর্নিং বডি গঠন করা হয়। 

সংবাদটি পঠিতঃ ৯৯ বার