মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০২:০৮:৫৫

প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২৫ এপ্রিল ২০১৭ ০৩:১১:১৬ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

রাজনৈতিক ইস্যুতে রাজপথে অবস্থান নেবে ১৪ দল

নিজস্ব প্রতিবেদক: 

দেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিতে সরকার ও মুক্তিযুদ্ধবিরোধী সকল ‘অপপ্রচারের’ জবাব দেবে আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন ১৪ দলীয় জোট। এছাড়া বিভিন্ন রাজনৈতিক ইস্যুতে রাজপথে জোটগতভাবে অবস্থান নেবে তারা। সম্প্রতি জোটের এক বৈঠকে এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

১৪ দলীয় জোট নেতারা জানিয়েছেন, আগামী মে মাসে সিরিজ কর্মসূচি দিয়ে রাজনীতির মাঠে সক্রিয় অবস্থান নেয়ার চিন্তাভাবনা করা হচ্ছে। পাশাপাশি সারাদেশে জোটের কর্মকা- পরিচালনার জন্য তহবিল সৃষ্টি ও আরও অধিক সমন্বয়ের উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সাম্প্রতিক ভারত সফর সম্পর্কে বিরোধীপক্ষ থেকে যে প্রচারণা চালানো হয়েছে সে বিষয়ে জোট শরিকরা সোচ্চার ভূমিকা পালন করেছেন। পৃথক বিবৃতি ও বক্তব্যের মাধ্যমে তারা সরকারের অবস্থান তুলে ধরার চেষ্টা করছেন। এ ধরনের ইস্যু ছাড়াও জনস্বার্থে সরকারবিরোধী যেকোনও ‘অপপ্রচারের’ জবাব দেবেন জোট নেতারা।

টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর কবর জিয়ারতের মাধ্যমে আগামী মাসে এই কর্মসূচি শুরু হবে। এরপর দেশের বিভিন্ন জেলায় জোটগতভাবে সমাবেশ করবে কেন্দ্রীয় ১৪ দল।এসব সমাবেশে আগামী নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানানো হবে। পাশাপাশি দেশের উন্নয়ন ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে সরকারের সফলতার কথাও তুলে ধরা হবে। কর্মসূচি চূড়ান্ত করতে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে বৈঠকে বসবে কেন্দ্রীয় ১৪ দল। বৈঠকে ঠিক করা হবে টুঙ্গিপাড়ার পর কবে কোন জেলায় সমাবেশ করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ১৪ দলীয় জোটের শরিক দল কমিউনিস্ট কেন্দ্রের যুগ্ম-আহ্বায়ক ডা. অসিত বরুণ রায় বলেন, মে মাসের কর্মসূচি এখনও চূড়ান্ত হয়নি। এ সপ্তাহে বৈঠক করে কোন কোন জেলায় সফর করা হবে তা নির্ধারণ করা হবে। তবে প্রথমে আমরা টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর কবর জিয়ারতের মাধ্যমে কর্মসূচি শুরু করব।

গণ আজাদী লীগের সভাপতি এস কে শিকদার বলেন, এখনও জোটের কর্মসূচি ঠিক করা হয়নি। তবে এসব সমাবেশ থেকে আগামী নির্বাচনে ১৪ দলীয় জোটকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানানো হবে।তিনি আরও বলেন, বর্তমানে দেশের বড় সমস্যা হচ্ছে জঙ্গিবাদ। সরকার সফলতার সঙ্গে জঙ্গিবাদ দমন করছে। এগুলো সমাবেশে তুলে ধরা হবে।

সংবাদটি পঠিতঃ ১৬৭ বার