মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০২:৫৯:৪২

প্রকাশিত : শনিবার, ৩০ মে ২০১৫ ০৯:১৯:১০ পূর্বাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

মানুষের আয়ু ১২০ বছর পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব

ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র কোষকলার সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে মানুষসহ সব প্রাণীদেহ। দেহকোষের শক্তির যোগান দেয় মাইটোকন্ড্রিয়া এবং প্রাণীদেহে বয়স বাড়ার প্রক্রিয়ার সঙ্গেও জড়িত দেহ কোষের এ অংশ। তাই কোনোভাবে যদি কোষকে 'মডিফাই' করা যায়, তাহলে বয়স বাড়বে না।

সম্প্রতি যৌবন ধরে রাখার এরকম অবিশ্বাস্য আবিষ্কার করেছেন রুশ বিজ্ঞানীরা। এ পদ্ধতিতে মানুষের আয়ু ১২০ বছর পর্যন্ত বাড়ানো সম্ভব বলে আশা করছেন তারা।

ইঁদুর, মাছ এবং কুকুরের ওপর এরই মধ্যে নতুন এ প্রক্রিয়ার পরীক্ষা চালানো হয়েছে।

মানুষের হৃদরোগ, অ্যালজাইমার বা পার্কিন্সন্স ডিজিজও দেখা দেয়া মাইটোকন্ড্রিয়ার জন্যেই।

রুশ গবেষকরা মনে করছেন, তারা দেহের জারণ প্রক্রিয়া প্রতিরোধ করতে পারে এমন এক নতুন পদ্ধতির খোঁজ পেয়েছেন। এ প্রক্রিয়ায় মানুষের আয়ু বেড়ে ১২০ বছর হতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ফলে আয়ু বাড়ানোর বড়ি তৈরি করা হয়তো সম্ভব হবে।

এ্ই আয়ু বাড়ানোর প্রকল্পের সদস্য মস্কো স্টেট বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ড. ম্যাক্সিম সুকুলাচেভ বলেন, মানুষের আয়ু বেড়ে ৮০০ বছর হবে না কিন্তু ১২০ বছর পর্যন্ত আয়ু বাড়ানোর চেষ্টাকে যৌক্তিক বলতে হবে।

অবশ্য রুশ পরীক্ষায় নতুন প্রক্রিয়া ব্যবহারে আয়ু বাড়েনি কিন্তু সহজে বুড়ো হয়ে যাওয়ার প্রক্রিয়া অনেকটা আটকানো সম্ভব হয়েছে। এ প্রক্রিয়ায় শেষ পর্যন্ত আয়ু বাড়ানো যাবে বলে মনে করছেন গবেষকরা।

তবে সময়ই তা প্রমাণ করবে।

সংবাদটি পঠিতঃ ৭০৫ বার


ট্যাগ নিউজ