শনিবার ২০ জানুয়ারী ২০১৮, ০১:২৯:০২

প্রকাশিত : শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৭ ১১:৫৭:০২ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

খালেদার গাড়িবহরে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীদের হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদক:

ফেনীতে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার কক্সবাজারগামী গাড়িবহরে হামলা ও ভাঙচুর করেছে ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা। এ সময় খালেদা জিয়ার গাড়ি হামলা এড়াতে সক্ষম হলেও বহরে থাকা গণমাধ্যমের গাড়িসহ শতাধিক গাড়ি ভাঙচুরের শিকার হয়।

শনিবার বিকেলে পৌনে ৫টার দিকে ফেনীর লালপুর নামক স্থানে এই হামলার ঘটনা ঘটে। 

এছাড়া ফেনী শহরসহ খালেদা জিয়ার যাত্রাপথের বিভিন্ন স্থানে আরো বাধার খবর পাওয়া গেছে। ফেনীতে হামলার পর পুলিশী নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে কিছুক্ষণ বিশ্রাম নিয়ে খালেদা জিয়া ফেনী সার্কিট হাউজ থেকে চট্টগ্রাম অভিমুখে রওয়ানা হন।

বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে খালেদা জিয়ার গাড়ি পেরিয়ে যাওয়ার পর ফেনী শহরের চার কিলোমিটার আগে মোহাম্মদ আলীবাজারে একদল যুবক হামলা চালায়। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হয় গণমাধ্যমের আটটি গাড়িসহ বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের শতাধিক গাড়ি।

একাত্তর, ডিবিসি, চ্যানেল আই ও বৈশাখী টেলিভিশন, একুশে টিভি, যমুনা, এটিএন নিউজের গাড়ি হামলায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

এছাড়া প্রথম আলো ও ডেইলি স্টারের একটি মাইক্রোবাসও হামলামুখে পড়ে।

একাত্তর টিভির আলোকচিত্রী আলম হোসনে, সিনিয়র প্রতিবেদক শফিক আহমেদ গুরুতর আহত হয়েছেন।

বৈশাখী টিভির সিনিয়র রিপোর্টার গোলাম মোর্শেদও আহত হন।

এছাড়া কালের কণ্ঠ, নয়া দিগন্ত, যুগান্তর, যায়যায়দিন, সংগ্রাম, জিটিভি, আমাদের সময়সহ বিভিন্ন গণমাধ্যমের সাংবাদিকরা হামলার শিকার হন।

সাংবাদিক পরিচয় দেয়ার পরও কয়েকজন গণমাধ্যমকর্মী মারধরের শিকার হন।

একাত্তর টিভির এক কর্মী ভিডিও ধারণ করতে গেলে তিনিও মারধরের শিকার হন।

একজন হামলাকারী দৌঁড়ে এসে ওই আলোকচিত্রীকে বলেন, একাত্তর-মেকাত্তর বুঝি না, তুই ক্যামেরায় ছবি কিল্লাই তুলবি? তোর ক্যামরা ভাঙিয়া হালামু। এ সময়ে ক্যামেরা নিয়ে টানা হেচড়া করে তারা।

এর আগে সকাল পৌঁনে ১১টার দিকে রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি দেখতে সড়ক পথে কক্সবাজারের উদ্দেশে ঢাকা ছাড়েন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। 

শনিবার চট্টগ্রাম পৌঁছে সেখানকার সার্কিট হাউজে অবস্থান করবেন বিএনপি নেত্রী। যাত্রাপথে দুপুরে ফেনীর সার্কিট হাউজে যাত্রা বিরতি করবেন। সেখানে মধ্যাহ্নভোজ শেষে রওনা দিয়ে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে পৌঁছাবেন রাতে। 

রোববার চট্টগ্রাম থেকে কক্সবাজার যাবেন তিনি। রোববার কক্সবাজার সার্কিট হাউজে অবস্থান করে সোমবার রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে যাবেন তিনি। কক্সবাজারের উখিয়ার বালুখালী, বোয়ালমারা ও জামতলী রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করবেন বিএনপি প্রধান। 

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর জানিয়েছেন, খালেদা জিয়া তার এই সফরে প্রায় ১০ হাজার শরণার্থীকে ত্রাণ দেবেন। এর আগে ২০১২ সালে কক্সবাজারের রামুতে বৌদ্ধপল্লীতে হামলা ও ভাঙচুরের পর ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে কক্সবাজারে যান খালেদা জিয়া। দীর্ঘদিন লন্ডনে চিকিৎসা নিয়ে গত ১৮ অক্টোবর দেশে ফেরেন খালেদা জিয়া।

সংবাদটি পঠিতঃ ১৩৬ বার