মঙ্গলবার ২৩ অক্টোবর ২০১৮, ০৮:০০:০৮

প্রকাশিত : সোমবার, ১৫ জুন ২০১৫ ১০:৪৭:২৮ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon


রৌমারীতে পাহাড়ী ঢলের বন্যায় ২০ হাজার মানুষ পানিবন্দী!!

সাকিব আল হাসান রৌমারী (কুড়িগ্রাম): কুড়িগ্রামের রৌমারী  উপজেলায় বন্যা পরিস্থিতির চরম অবনতি ঘটেছে। প্রবল বর্ষণ ও ব্রহ্মপুত্র নদে পানি বৃদ্ধির ফলে নদের তীরবর্তি ও নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়েছে। এতে রৌমারী উপজেলার পাঁচশতাধিক বাড়ি ঘর ডুবে গেছে। সীমান্তঘেষা জিঞ্জিরাম, কালো ও ধরনী নদীতে তীব্র বেগে পাহাড়ি ঢলের পানি নামছে। এতে সীমান্ত এলাকার ৩০ গ্রামের প্রায় ২০ হাজার মানুষ পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। ঢলের তীব্র স্রোতে ভেসে গেছে বড়াইবাড়ি এলাকায় ধরনী নদীর ওপর বাঁশের সেতু ও ইছাকুড়ি বাঁধ ভেঙে গেছে। এ ছাড়া বালিয়ামারী সীমান্ত হাট ঢলের পানিতে ভাসছে। এর ফলে সীমান্ত এলাকা যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে।  সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে,  সীমান্তঘেষা বড়াইবাড়ি, চুলিয়ারচর, ঝাউবাড়ি, বারবান্দা, উত্তর বারবান্দা, দক্ষিণ বারবন্দা, কালোচর, চর ইজলামারী, বকবান্দা, খেওয়ারচর, আলগারচর, উত্তর আলগারচর, লালকুড়া গ্রামগুলোর চারপাশ
পাহাড়ি ঢলের পানিতে ভাসছে। ওইসব
গ্রামের মানুষ এখন গৃহবন্দি হয়ে পড়েছে। ঘরের বাইরে পা ফেললেই ঢলের পানি। বর্তমানে তাদের যোগাযোগের ভরসা নৌকা আর কলাগাছের ভেলা। বড়াইবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা শফিকুল ইসলাম বলেন, বন্যার পানি চারপাশে। রৌমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আব্দুল হান্নান মোবাইলে জানান, আজ সোমবার পর্যন্ত সরকারিভাবে কোনো ত্রাণসামগ্রী বিতরণ করা হয়নি।

সংবাদটি পঠিতঃ ৯৯৮ বার


ট্যাগ নিউজ

সর্বশেষ খবর