মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০২:১১:৫৭

প্রকাশিত : শনিবার, ০১ এপ্রিল ২০১৭ ০৭:০৩:১৭ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

টপ অর্ডারদের ব্যর্থতায় হেরে গেলো বাংলাদেশ

ক্রীড়া প্রতিবেদক: 

কলম্বোর সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাব গ্রাউন্ডে স্বাগতিক শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তিন ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় এবং শেষ ম্যাচ টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থতার কারণে হেরে গেলো বাংলাদেশ।  টাইগারদের ৭০ রানে হারিয়ে সিরিজে সমতা আনলো লঙ্কানরা।

ম্যান অফ দ্যা ম্যাচ হন লঙ্কান ব্যাটসম্যান কুশল মেন্ডিস।  ম্যান অফ দ্যা সিরিজ হন থিসারা পেরেরা।

টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে স্বাগতিকরা করে ২৮০ রান।  বোলিংয়ে তিনটি উইকেট পান মাশরাফি, দু'টি পান মোস্তাফিজ। তাসকিন-মেহেদি একটি করে উইকেট তুলে নেন। উইকেট পাননি সাকিব, মোসাদ্দেক আর মাহমুদুল্লাহ।

লঙ্কানদের করা ২৮০ রানের জবাবে খেলতে নেমে শুরুতেই আউট হন দলের অন্যতম নির্ভরযোগ্য ওপেনার তামিম ইকবাল খান, সাব্বির রহমান এবং মুশফিকুর রহিম। দলীয় ও ব্যক্তিগত ৪ রানের মাথায় নুয়ান কুলাসেকারার বলে আউট হন তামিম। সাব্বিরও আউট হন কুলাসেকারার বলে। দলীয় ১১ রানের মাথায় সুরাঙ্গা লাকমল বলে এলবিডব্লিউ হয়ে সাজঘরে ফিরেন মুশফিক।

এরপর সাকিব ও সৌম্য সরকারে জুটি কিছু আশার আলো দেখালেও দলীয় ৮৮ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৩৮ রান করে দিলরুয়ান পেরেরা বলে আউট হন সৌম্য।  আসেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তিনি তার রানকে ২ অংকের কোঠায়ই নিতে পারলেন না। ব্যক্তিগত ৯ রান করে আউট হন তিনি। এরপরে একমাত্র আশার আলো অর্ধশত রান করা সাকিবও ফিরলেন প্যাভিলিয়নে। তখন দলের রান ছিলো ১১৮। সাকিবের পরে মাহমুদউল্লাহ আসলেও তিনি ৭ রান করে আউট হন।  ফলে এই ম্যাচ জেতার আর কোন আশা থাকলো না। শুরু হয় ব্যবধান কমানোর পালা। 

সর্বশেষ মিরাজ - মাশরাফি জুটি এবং  মিরাজ - তাসকিন জুটি সেই কাজটা বেশ ভালোভাবেই করতে সক্ষম হয়।  ফলে ব্যবধান কমিয়ে ৭০ রানে হারলো বাংলাদেশ। তবে মেহেদী মিরাজ তুলে নেন মেইডেন ওডিআই ফিফটি।

শ্রীলঙ্কান ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ২টি অর্ধশত রান হয়। এর মধ্যে কুশল মেন্ডিস করেন ৫৪ রান। আর দিলরুয়ান পেরেরা করেন ৫২ রান।

লঙ্কান বোলারদের মধ্যে নুয়ান কুলাসেকারা পান ৪ উইকেট। আর সুরাঙ্গা লাকমল, দিলরুয়ান পেরেরা এবং সেকুজে প্রসন্ন ২টি করে উইকেট পান।

 

সংবাদটি পঠিতঃ ১৯২ বার