মঙ্গলবার ২১ নভেম্বর ২০১৭, ০১:৫৮:০২

প্রকাশিত : শনিবার, ০৮ এপ্রিল ২০১৭ ০৮:১৩:৩৬ অপরাহ্ন Zoom In Zoom Out No icon

বাজেটে গবেষণার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা: অর্থমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: 

বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের গবেষণায় আলাদা বাজেটের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আগামী বাজেটে গবেষণায় বিশেষ ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। ইতোমধ্যে এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

শনিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে ভর্তি ৪৬তম আবর্তনের শিক্ষার্থীদের প্রবেশিকা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন অর্থমন্ত্রী।

তিনি বলেন, বর্তমান সরকারের অবদানে বাংলাদেশ বিভিন্ন ক্ষেত্রে সক্ষমতা দেখাতে পেরেছে। বাংলাদেশ এখন আর ঝুড়ি নয়। বাংলাদেশের অর্থনীতি এখন এগিয়ে যাওয়ার অর্থনীতি। দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি সর্বোচ্চ অবস্থানে নিয়ে যাওয়া আমাদের একটি বড় স্বপ্ন। আমরা আশা করছি এবার আমাদের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ৭.১৫ শতাংশে উন্নীত হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ বলেন, তোমরা আজ জ্ঞানালোকে উদ্ভাসিত সমাজের নাগরিক। সমগ্র জাতির প্রত্যাশা, যে জ্ঞান আজও রয়েছে মানুষের অধরা, যে জগৎ এখনও অজানা, যে সম্পদ এখনও অর্জন সম্ভব হয়নি, তা তোমাদের মাধ্যমে মানব সমাজে আসবে।

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম বলেন, একটি জাতিকে বিশ্বের বুকে টিকে থাকতে হলে বিশ্ববিদ্যালয়সমূহ থেকে নেতৃত্ব তৈরি হতে হবে।

বাংলাদেশের সমাজ-সংস্কৃতি, ইতিহাস, মূল্যবোধ, রীতিনীতি প্রভৃতির আলোকে বিশ্ববিদ্যালয়কে বৈশ্বিক নেতৃত্বের জন্য যোগ্যতাসম্পন্ন বিশ্ব নাগরিক গড়ে তুলতে হয়।

অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন প্রো-উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আবুল হোসেন, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. আবুল খায়ের, ছাত্রকল্যাণ ও পরামর্শদান কেন্দ্রের পরিচালক অধ্যাপক ড. রাশেদা আখতার, প্রক্টর অধ্যাপক ড. তপন কুমার সাহা।

রেজিস্ট্রার আবু বকর সিদ্দিক বিভিন্ন অনুষদ ও ইনস্টিটিউটের ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদানের জন্য উপস্থাপন করলে স্ব স্ব অনুষদের ডিন এবং ইনস্টিটিউটের পরিচালকরা নবাগত শিক্ষার্থীদের পাঠদানের জন্য বরণ করেন। উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম নবাগত শিক্ষার্থীদের শপথবাক্য পাঠ করান।

সংবাদটি পঠিতঃ ১০৭ বার